রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শ্বশুরবাড়ি কোথায়?

খুলনা শহরের দক্ষিণডিহি রবীন্দ্র কমপ্লেক্স বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত একটি স্থান।খুলনা শহর থেকে ১৯ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ফুলতলা উপজেলার তিন কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে দক্ষিণডিহি অবস্থিত।দেশী-বিদেশী পর্যটক ও দর্শনার্থীরা যেমন এখানে আসছেন, তেমনি ২৫ বৈশাখ ও ২২ শ্রাবণকে ঘিরে জাতীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এখানে আয়োজিত হয় নানা অনুষ্ঠানমালা। এবারের ২৫ বৈশাখেও রয়েছে তিনদিনব্যাপী অনুষ্ঠান।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শ্বশুরবাড়ি কোথায়

খুলনার জেলার ফুলতলা উপজেলা সদর থেকে তিন কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে দক্ষিণডিহি গ্রামটির অবস্থান। এই গ্রামের ঠিক মধ্যখানে রবীন্দ্রনাথ পত্নী মৃণালিনীর জন্মভিটে। প্রত্নতত্ব বিভাগের তত্ত্বাবধানে প্রাচীন ভবনটি সংস্কার হয়েছে। এখন এটি রবীন্দ্র স্মৃতি জাদুঘর। বাড়ির অপর অংশে মৃণালিনী মঞ্চ। মঞ্চের পেছনে পিকনিক কর্ণার।

রবীন্দ্রনাথের শশুরবাড়ি

 

রবীন্দ্রনাথের ২২ বছর বয়সে বিয়ে হয় দক্ষিণডিহি গ্রামের বেণীমাধব রায় চৌধুরীর মেয়ে ভবতারিণী ওরফে মৃণালিনী দেবীর সঙ্গে।এখানে জাদুঘর করা হয়েছে। সমৃদ্ধ আছে কবি রবিঠাকুরের স্মৃতিচিহ্ন। কমপ্লেক্সের দোতলায় ঝুল বারান্দায় হাওয়া খেতে খেতে মনে পড়ে- ‘তোমার খোলা হাওয়ায়…’। অসংখ্য বইয়ের সমাহার। ওপরতলা বা নিচতলায় তথ্য বোর্ড আছে। রবিঠাকুরের পেইন্টিংস, হস্তলিপি-পাণ্ডুলিপিও আছে। শিলাইদহের মতো সমৃদ্ধ না হলেও বাংলাদেশে রবিঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত পতিসর বা শাহজাদপুর থেকে তা কম নয়। পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন এবং নিরিবিলি পরিবেশ এখানে। কমপ্লেক্সে ঢুকতেই দু’পাশে রবিঠাকুরের দুটি ছোট আবক্ষ ভাস্কর্য শোভা পাচ্ছে। দোতলাবিশিষ্ট এ ভবন দেখতেও বেশ সুন্দর। রবিঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত দক্ষিণডিহি। যশোর-খুলনা মহাসড়কেই ফুলতলা উপজেলা বাজার। গ্রামের ঠিক মাঝখানেই এ বাড়ি।

ছায়াঢাকা এ গ্রামেই সগৌরবে মাথা উঁচু করে আছে এ বাড়িটি। ফুল, ফল আর বিচিত্র গাছগাছালিতে ঠাসা সৌম্য-শান্ত গ্রাম দক্ষিণডিহি। কলকাতার জোড়াসাঁকোর বিখ্যাত ঠাকুর পরিবারের সঙ্গে দক্ষিণডিহির সম্পর্ক ছিল নিবিড়। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মা সারদা সুন্দরী দেবী আর কাকি ত্রিপুরা সুন্দরী দেবীর জন্ম এ গ্রামেই। রবীন্দ্রনাথের স্ত্রী মৃণালিনী দেবীও দক্ষিণডিহির মেয়ে। তার আরেক নাম ভবতারিণী। বিয়ের পর নাম রাখা হয় মৃণালিনী দেবী। পরে কলকাতায় পাড়ি জমান দক্ষিণডিহির ঠাকুর পরিবারের বেশিরভাগ সদস্য।

এখানে কবিগুরু ও কবিপত্নীর আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। ২৫শে বৈশাখ ও ২২শে শ্রাবণে এখানে নানা আয়োজনে রবীন্দ্রজয়ন্তী ও কবিপ্রয়াণ দিবস পালন করা হয়।


রবীন্দ্রনাথের শ্বশুরবাড়ি,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ি কোথায়,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মস্থান,birbangla.com,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখাপড়া,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সংক্ষিপ্ত জীবনী,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জমিদারি,পিঠাভোগ খুলনা,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটবেলা,রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ী,

Leave a Comment

You cannot copy content of this page