বান্দরবান মেঘলা পর্যটন কেন্দ্র -ট্যুর প্ল্যান ও গাইড

মানুষ ভ্রমণ পিপাসু।অজানাকে জানতে,অদেখাকে দেখতে মানুষ পারি জমায় দুরদুরান্তে।কত সময়, কত টাকাই না খরচ করে শুধুমাত্র অজেয় কে জয় করার নিমিত্তে।দূরের সৌন্দর্য ভোগ করতে গিয়ে সে ভুলেই যায় নিজ দেশের কথা।হয়ত নিজ দেশেই রয়েছে এমন কিছু যা তার চোখে পরে নি,কিন্তু সেটার তাৎপর্য আরো বৃহৎ আরো বিস্তৃত। তাই তো কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তার কবিতায় রেখে গেছেন সেই আক্ষেপ এর ছাপ।
“বহু দিন ধ’রে বহু ক্রোশ দূরে
বহু ব্যয় করি বহু দেশ ঘুরে
দেখিতে গিয়েছি পর্বতমালা,
দেখিতে গিয়েছি সিন্ধু।
দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া
ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া
একটি ধানের শিষের উপরে
একটি শিশিরবিন্দু।”

বান্দরবান মেঘলা পর্যটন কেন্দ্র

বান্দরবান মেঘলা পর্যটন কেন্দ্র
  কি ভাবে যাবেনঃ ঢাকা টু বান্দরবান বিভিন্ন বাস পাওয়া যায় । প্রতিদিন আরো অনেক এসি বা লোকাল বাস পাওয়া যায় ।রাজধানী ঢাকা থেকে সড়ক পথে সরাসরি বান্দরবানে যাওয়া যায়। ঢাকার কলাবাগান,সায়দাবাদ,ফকিরাপুল,নর্দা,কমলাপুর থেকে ইউনিক পরিবহন,ডলফিন পরিবহন,হানিফ পরিবহন, শ্যামলী পরিবহন, সেন্টমার্টিন পরিবহন ও বিআরটিসির নন এসি ও এসি বাস যায়। ভাড়া নন এসি ৫৬০ টাকা ও এসি ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা।চট্রগ্রাম শহরের বহদ্দারহাট এলাকা থেকে বিভিন্ন পরিবহনের বাস সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বান্দরবানে চলাচল করে। ভাড়া ৭০ থেকে ৮০ টাকা।বান্দরবান শহর থেকে নীলাচল যাওয়ার জন্য ভাড়ায় পাওয়া যায় সিএনজি, চাঁদের গাড়ি ও জিপ।সিএনজি ভাড়া পড়বে ৪৫০-৫০০ টাকা। আর চাঁদের গাড়ি বা জিপ গাড়ির ভাড়া পড়বে ১২০০ -১৫০০ টাকা।এছাড়া নীলাচলে যেতে সড়কের টোল পরিশোধ করতে হয়।সিএনজি ৫০ টাকা, জিপ ৬০ টাকা। কোথায় থাকবেনঃ মেঘলা পর্যটন কেন্দ্রে রয়েছে জেলা প্রশাসনের একটি সুন্দর রেস্ট হাউজ রয়েছে। যেখানে অবকাশ ভোগ করা যায় ভালভাবে। এখানে রাত্রিযাপনের জন্য চারটি কক্ষ রয়েছে। প্রতি কক্ষ ২৫০০/- (প্রতিদিন)। যে কেউ বুকিংয়ের জন্য ফোন করতে পারেন- ০৩৬১-৬২৭৪১ ও ০৩৬১-৬২৭৪২ নম্বরে। বান্দরবানে অসংখ্য রিসোর্ট, হোটেল, মোটল এবং রেস্টহাউজ রয়েছে। যেখানে ৬০০ থেকে ৩ হাজার টাকায় রাত্রিযাপন করতে পারবেন। রিসোর্ট : মেঘলা পর্যটন কমপ্লেক্সের বিপরীতে ছোট্ট পাহাড়ের চূড়ায় হলিডে ইন রিসোর্ট। এখানে ছোটছোট অনেকগুলো কটেজ রয়েছে। হোটেল ফোর স্টার : বান্দরবান শহরে অবস্থিত হোটেল ফোরস্টার। এখানে এসি এবং নন এসি দু রকমের রুম রয়েছে। হোটেলের প্রতিটি কক্ষে রয়েছে টেলিভিশন। ফোন-০৩৬১-৬২৪৬৬। হোটেল থ্রী স্টার: এটি বান্দরবান বাস স্টপের পাশে অবস্থিত। নীলগিরির গাড়ী এই হোটেলের সামনে থেকে ছাড়া হয়। এটি ৮/১০ জন থাকতে পারে ৪ বেডের এমন একটি ফ্ল্যাট। প্রতি নন এসি ফ্ল্যাট-২৫০০ টাকা, এসি-৩০০০ টাকা। বুকিং ফোন: থ্রী স্টার এবং ফোর ষ্টার হোটেল মালিক একজন, মানিক চৌধুরী-০১৫৫৩৪২১০৮৯ / ০১৮১৩২৭৮৭৩১। এখানে জেলা প্রশাসন পরিচালিত একটি সুন্দর রেস্ট হাউজ রয়েছে, যেখানে রাত্রিযাপন করা যায়। রেস্ট হাউজটি দৈনিক ভিত্তিতে ভাড়ায় পাওয়া  যায়। কি দেখতে পাবেনঃ বান্দরবান- কেরানীহাট সড়কের পাশে পাহাড়বেষ্টিত স্বচ্ছ জলোর মনোরম লেক। বান্দরবান শহর থেকে ৪.৫ কিলোমিটার দূরে এই কমপেস্নক্স রয়েছে চিত্তবিনোদনের নানাবিধ উপকরণ। জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে একটি চিড়িয়াখানাসহ পর্যটন কেন্দ্রটি পরিচালিত হচ্ছে।মেঘলা পাহাড় বেষ্টিত একটি লেককে ঘিরে গড়ে উঠেছে। চারিদিকে সবুজ ও মাঝখানে লেক, সেই লেকে মেঘ, পাহাড় ও তরুরাজির কোমল ছায়া। শিশুপার্ক, প্যাডেল বোট, ক্যাবল কার, উন্মুক্ত মঞ্চ, চা বাগান, সবুজ প্রকৃতি, লেক ও পাহাড়ী বান্দরবানের নয়নাভিরাম দৃশ্য, সব নিয়ে দারুণ সময় কাটবে।
বান্দরবান মেঘলা পর্যটন কেন্দ্র,বান্দরবানের দর্শনীয় স্থান,বান্দরবান ভ্রমন,বান্দরবানের দর্শনীয় স্থান সমূহ,বান্দরবান ভ্রমন খরচ ২০২০,বান্দরবান নীলাচল,বান্দরবান হোটেল ভাড়া ২০২০,বান্দরবান জেলার মানচিত্র,বান্দরবান ভ্রমণ খরচ,বান্দরবান জেলার উপজেলা সমূহ,হোটেল প্লাজা বান্দরবান bandarban,বান্দরবান hotel,বান্দরবান house,kfplanet.com,birbangla.com,

Leave a Comment